প্রত্যেক মায়ের এইসব টিপ্স জানা দরকার, তাঁদের ছোট্ট সোনার খেলনাগুলো সংক্রমণ-মুক্ত রাখতে

আপনি কি এমন একজন মা যিনি জীবাণুর কারণে হওয়া রোগ থেকে মুক্তি পেতে আপনার বাচ্চার খেলনাগুলো জীবাণুমুক্ত রাখার সন্ধান চাইছেন? এখানে রইল কয়েকটা সহজ টিপ্স, যা কচি বাচ্চার মায়েরা ব্যবহার করতে পারেন|

নিবন্ধ আপডেট হয়েছে

Every Mother Needs to Know These Tips to Disinfect Their Tiny Tots’ Toys

কচি বাচ্চারা প্রায়ই তাদের খেলনাগুলোর মধ্যে প্রথম সেরা বন্ধুকে খুঁজে পায়, কিন্তু সবকিছু মুখে দেওয়ার প্রবণতা তাদের থাকে| এটা এর পরিণামে ক্ষতিকারক রোগ-সৃষ্টিকারী জীবাণুগুলো আপনার বাচ্চার পেটে চলে যেতে পারে| তাই, আপনার বাচ্চার খেলনাগুলো জীবাণুমুক্ত করা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ, যখন প্রাথমিক পরিচর্যা প্রদানকারী বা পরিবারের অন্য কেউ অসুস্থ থাকে| আর অন্য সময়ে, আপনার বাচ্চার খেলনাগুলো সপ্তাহে একবার পরিষ্কার করুন|

প্রভাবদায়কভাবে আপনার বাচ্চার খেলনাগুলো জীবাণুমুক্ত করার কিছু টিপ্স এখানে রইল| অবশ্য, শুরু করার পূর্বে, মন দিয়ে খেলনাগুলোর ওপর নির্মাতার নির্দেশাবলি বা কেয়ার লেবেল মন দিয়ে পড়া আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে|

১) প্লাস্টিকের খেলনা জীবাণুমুক্ত করা

আপনি জীবাণুনাশক উপাদান থাকা মৃদু ডিটারজেন্ট এবং উষ্ণ জল ব্যবহার করে আপনার ছোট্টসোনার প্লাস্টিকের খেলনাগুলো ধুতে পারেন| এক বালতি  উষ্ণ জলে, ১ টেবিল চামচ মৃদু ডিটারজেন্ট দিন আর তার মধ্যে সব খেলনাগুলো ফেলুন| ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন এবং হালকাভাবে হ্যান্ড-ওয়াশ করুন| একটা পরিষ্কার তোয়ালে ব্যবহার করে খেলনাগুলো শুকিয়ে নিন।

ব্যাটারি-চালিত প্লাস্টিকের খেলনার জন্যে, সাবান জলে ভিজিয়ে নেওয়া কাপড় দিয়ে মুছে শুকিয়ে নিন| তারপর আরেকটা শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নিন| ওয়াশ করার আগে ব্যাটারি খুলে নেওয়া নিশ্চিত করবেন|

১) কাঠের তৈরি খেলনা জীবাণুমুক্ত করা

১ কাপ হোয়াইট ভিনিগার, ১ কাপ জল আর ৩-৪ ফোঁটা ডিটারজেন্ট ব্যবহার করে একটা মিশ্রণ বানান| এই মিশ্রণে একটা স্পঞ্জ ভিজিয়ে নিয়ে, সেটা দিয়ে কাঠের তৈরি খেলনা মুছে নিন| এবার একটা পরিষ্কার ভেজাভেজা তোয়ালে নিন আর সাবানপূর্ণ মিশ্রণ মুছে ফেলুন| খেলনাগুলো হাওয়ায় শুকিয়ে যেতে দিন|

৩) ফ্যাব্রিকের খেলনা জীবাণুমুক্ত করা

আপনি বেবি ওয়াইপ্স দিয়ে আপনার বাচ্চার স্টাফড পশুগুলো স্পট-ক্লিন করতে পারেন| অথবা আপনি মৃদু ডিটারজেন্ট ব্যবহার করে, জেন্টল সাইকেলে আপনার ওয়াশিং মেশিনেও টয়েজ দিতে পারেন| ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না| সেগুলো সরাসরি রোদে শুকোতে দিন| আপনার ব্যাটারি-চালিত  খেলনাগুলো ওয়াশ না  করার ব্যাপারে সাবধান হবেন|

৪) বাথ টয়েজ (জলে ভাসমান খেলনা) জীবাণুমুক্ত করা

আধ বালতি গরম জলে ১ কাপ হোয়াইট ভিনিগার সমান অংশে মিশিয়ে ক্লিনিং সল্যুশন বানান| এই সল্যুশনে খেলনাগুলো ২০ মিনিট চুবিয়ে রাখুন| তারপর পরিষ্কার জল দিয়ে সেগুলো ধুয়ে নিন|

৫) ধাতুর তৈরি খেলনা জীবাণুমুক্ত করা

এক বালতি জলে ১ টেবিল চামচ ডাইলুটেড ব্লিচ দিন| এই সল্যুশনে  ধাতুর তৈরি খেলনাগুলো ১০ মিনিট চুবিয়ে রাখুন| তারপর, পরিষ্কার জল দিয়ে  খেলনাগুলো ধুয়ে নিন আর হাওয়ায় শুকিয়ে যেতে দিন| ব্লিচ ব্যবহার করার সময় রাবারের গ্লাভস ব্যবহার করার কথা মনে রাখবেন|

৬) রবারের তৈরি খেলনা জীবাণুমুক্ত করা

একটা বাটিতে সমান অনুপাতে হোয়াইট ভিনিগার আর জল মিশিয়ে তার মধ্যে পরিষ্কার করার একটা কাপড় ভিজিয়ে নিন| পরিষ্কার করার কাপড় দিয়ে রবারের খেলনাগুলো মুছে নিন আর হাওয়ায় শুকোতে দিন|

আপনার ছোট্টসোনাকে নিরাপদ আর সুস্থ রাখতে এইসব সহজ টিপ্স ব্যবহার করুন|

নিবন্ধটি মূলত প্রকাশিত