ওয়াশিং মেশিন সম্বন্ধে এই ৫টি বিষয় জানা জরুরি

ওয়াশিং মেশিন ব্যবহার করতে না চাইলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা হাতে জামাকাপড় কাচা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই।

নিবন্ধ আপডেট হয়েছে

5 things about a washing machine that you should know

ওয়াশিং মেশিনের বিষয়ে এই ৫টি বিষয় অবশ্যই জেনে রাখুন।

গরম জলে  যে কোনও জামাকাপড় কাচার আগে তার লেবেলে লেখা নির্দেশিকা দেখে নিন

কেনার আগে

ক্ষমতা

শুধু স্বামী স্ত্রী থাকলে ৫ কেজির ওয়াশিং মেশিনই যথেষ্ট। বাবা-মা এবং ছেলে-মেয়ে নিয়ে থাকলে ৭ থেকে ৮ কেজির মেশিন কেনার চেষ্টা করুন। আর যৌথ পরিবার হলে আরও বড় ৯.৫ কেজির মেশিন কিনুন।

অটোমেটিক নাকি সেমি অটোমেটিক?

চাকরিজীবী হলে অটোমেটিক ওয়াশিং মেশিন বেছে নিন। এটা তাড়াতাড়ি ও সহজে জামাতাপড় পরিষ্কার করে। তবে একই সঙ্গে এটি একটু দামিও বটে।

টপ নাকি ফ্রন্ট লোড?

টপ লোডার মেশিনে কাচাকাচি সহজ, ক্ন্তু অনেক বেশি সময় লাগে। আবার এই মেশিনের শব্দও অনেক সময় বিরক্তির কারণ হতে পারে। ফ্রন্ট লোডার মেশিনে দ্রুত ও সহজে কাচা যায়, আকারে বড়, কিন্তু দাম তুলনায় বেশি।

ব্যবহার

ভিনিগার

ওয়াশিং মেশিন পুরোপুরি পরিষ্কার করার এটাই সবচেয়ে কার্যকরী উপাদান। যেটা দরকার, সেটা হল, শুধু ২ চামচ ভিনিগার ওয়াশিং মেশিনে ঢেলে দিয়ে জামাকাপড় ছাড়া কিছুক্ষণ ঘুরিয়ে নিন।

গরম জলে ব্যাকটিরিয়া ও জীবাণু মেরে ফেলুন

জামাকাপড় ও বিছানার চাদর গরম জলে কেচে জীবাণু বেশি করে মারতে পারবেন। এটা ঠান্ডা জলের চেয়ে বেশি কার্যকরী।

নিবন্ধটি মূলত প্রকাশিত